অনেক অনেক অনেক অনেক অনেক দিন পরে টিউটরিয়াল লেখতে বসছি আপনারা নিশ্চই সাইটে আসা বাদই দিয়া দিছেন এই ভাইবা যে এইখানে একটা টিউটরিয়াল ও দেয়া হয় না। আপনারা কেউ জানেন হয়তো আর কেউ না যে, আমি পুরা বিডিগিক্স সাইটটারে ডিজাইন করলাম নতুন কইরা আর ফয়সাল আহমেদ তার কোডিং করলেন তাই টিউটরিয়াল এর দিকে আর খেয়াল করা হয় নাই। কিন্তু আজকে ভাবলাম যে একটা লেইখাই ফালামু সব কাজ বাদ দিয়া। আজকে আমরা যেই সাইটটা বানামু ঐটা একটু কালারফুল অনেক কিন্তু আপনারা চাইলেই কালার কমায়া দিতে পারবেন অথবা ভিন্ন কোনো কালার দিতে পারবেন।

যাই হোক, নিচের ছবিতে দেখেন আজকে আমরা কি বানামু।

Xoom studio

স্টেপ ১

ডকুমেন্ট সাইজ

নতুন একটু ডকুমেন্ট ওপেন করুন সাইজ দিন width 1280x, height 1024 resolution 300। তারপর ডকুমেন্ট এর ব্যাকগ্রাউন্ড কালার দিন #f9f9f9। নতুন আরেকটি লেয়ার ওপেন করুন তারপর ব্যাকগ্রাউন্ড কালার দিন #271f34। ব্যাকগ্রাউন্ড গুলাকে গ্রুপ করতে ভুলবেন না। লেয়ার গুলাকে সিলেক্ট করে ctrl+G দিন। group করা জরুরী কারন দেখবেন যে পুরা ইমেজ বানানো শেষে এতো লেয়ার create হবে যে কোনটা কি তা খুজে পাবেন না তাই গ্রুপ করাটা অনেক জরুরী। লেয়ার গুলাকে গ্রুপ করে গ্রুপের নাম দিন ব্যাকগ্রাউন্ড।

1

স্টেপ ২

guide + background

ctrr+r চাপ দিন যাতে রুলার ওপেন হয়। রুলার এর উপরে রাইট ক্লিক করুন তারপর inches সিলেক্ট করুন।  তারপর আপনার বামের থেকে ৩ পিক্সেল ডানে নিন আর বাম থেকে ৩ পিক্সেল বামে নিন (ডান থেকে ১৫ পিক্সেল) । নিচের ছবি লক্ষ্য করুন। উপরের দিক থেকে ০.৮০ ইঞ্চি অর্থাৎ  ৩ টা লাইন নিচে নামান। এইটা করবেন যাতে আমরা আমাদের লোগো এবং মেনু বার টাকে সোজা ভাবে বসাতে পারি। আমি সব কিছু নতুন ভাবে আবার explain করবো না যে কেনো guide দিতে হয় অথবা কিরকম ব্যাকগ্রাউন্ড দিতে হয় কারন এগুলা অনেক বিগিনার লেভেল এর।

 

2

 

আমাদের যে purple background আছে তা কেমনে উপরের ছবির মতো করা যায় লক্ষ্য করুন। আপনার purple image এর লেয়ার সিলেক্ট করুন। তারপর ctrl+t চাপুন। বক্স এর ভিতরে রাইট ক্লিক করে skew ক্লিক করুন। তারপর নিচের বামের cursor ক্লিক করে দানের দিকে নিন একটু। তারপর ডানের নিচের cursor টা একটু উপরের দিকে নিন। তারপর আবার ডানের নিচের বামেরটা cursor টা উপরের দিকে নিয়ে adjust করুন। এই রকম জিনিস বইলা বোঝানো যায় না তবে আপনারা যদি skew নিয়া একটু নাড়াচাড়া করে আমি sure যে উপরের ছবির মতো cut করতে আপনাদের কোনো অসুবিধা হবে না।

 

স্টেপ ৩

 লোগো

উপরের ডাউনলোড ফাইলস থেকে প্রয়োজনীয় ফাইলস ডাউনলোড করে নিন। ফন্টস ফোল্ডার এর ভিতরে দেখবেন hobo std নামে একটা ফন্ট আছে ঐটা আপনার পিসি তে install করা না থাকলে install করে দিন তারপর নিজের মতো কিছু একটা লিখুন আপনার লোগোতে। আমি দিলাম xoom studio.

xoom stuio: font size- 41 px, color – pink #ce2159, turquoise #0ad0bf, white #f4f1fc

Slogan: font – moolboran, font size – 41 px, color – #f4f1fc

আপনারা লোগো এর ফন্ট সাইজ কম দিলে ভালো হয়। আমি সাইজ এর দিকে একটু বেখেয়ালি তাই বড় বড় জিনিস বানায়া ফেলি প্রায়ই কিন্তু আপনাদের কাছে যদি বেশি বড় মনে হয় আপনারা অবশ্যই ছোট করে দিবেন। :)

আবারো, লেয়ার গুলাকে গ্রুপ করে লোগো নাম দিন।

 

3

 

স্টেপ ৪

 মেনু বার/ নেভিগেসন বার

ঠিক ৯ ইঞ্ছি তে আরেকটা লাইন guide দিন যাতে আমদের মেনু কতো লম্বা হবে আমরা বুঝতে পারি। তারপর এবং ১.৮০ ইঞ্ছি তে আরেকটা guide line আঁকুন। নিচের ছবিতে দেখুন কিভাবে GUIDE দেয়া হয়েছে।

4.1

 

এখন আমরা এই ২ লাইন এর মাঝখানে rectangle tool দিয়ে যেই কোনো width এর একটা বক্স আঁকি। তারপর আপ্নারে যা করতে হবে তা হোলো ctrl+t ক্লিক করুন তারপর বক্স এর ভিতরে মাউস নিয়ে রাইট ক্লিক করলে দেখবেন একটা অপশন আছে skew, ঐটায় ক্লিক করুন তারপর উপরের দিক থেকে আপনার cursor ডানের দিকে একটু নিন দেখবেন যে আপনার ছবি দেখতে নিচের ছবির মতো দেখাইতেছে।

 

4.2

 

এখন আপনার লেয়ার টারে একটু হাল্কা noise দিয়ে নিন। layer এর উপরে রাইট ক্লিক করে Smart object ক্লিক করুন। Smart object করলে আপনি আপনার noise যখন ইচ্ছা change করতে পারবেন। আবার আপনি যদি আপনার লেয়ার কে rasterise image কইরা ফেলেন তাইলে আর যখন ইচ্ছা তখন filter বদলানো যায় না। আপনারে হয় নতুন লেয়ার বানাতে হবে নাহয় পিছনে ব্যাক করে নতুন করে filter apply করতে হবে। যাই হোক, আমরা noise দিবো নিচের ছবি অনুযায়ী,

Amount – 2, Gaussian

4.3

এখন আমাদের আইকন দিবার পালা। আইকন প্রয়োজনীয় ফাইলসে পাইবেন। .png করাই আছে আপনারা শুধু ড্রাগ এন্ড ড্রপ করবেন। তারপর আইকন লেয়ার এর উপরে ডাবল ক্লিক করে layer style ওপেন করুন। তারপর color overlay দিন নিচের ছবির মতো করে,

color – White #ffffff

4.4

 

এখন প্রথম ইমেজ এর একটা duplicate layer ক্লিক করুন ctrl+j ক্লিক করে তারপর right arrow দিয়ে ডানের দিকে নিন একটু তারপর inner shadow layer style appy করুন নিচের ছবির মতো,

 

4.5

 

তারপর moolboran ফন্টটি install করে photography লিখুন। কালার দিন সাদা। এইভাবে আরও ২ বার রিপিট করুন।

 

4.6

 

স্টেপ ৫

ইমেজ

ডকুমেন্ট এর ডান দিক থেকে ১১ ইঞ্ছি width এবং ৪ (চার)  ইঞ্ছি উচ্চতা/height দিয়ে একটি বক্স আঁকুন rectangle tool দিয়ে । বক্স এর কালার দিন #f9f9f9। তারপর লেয়ারটির উপরে রাইট ক্লিক করে লেয়ারটিকে rasterize layer করে নিন। rasterize যদি না করেন তাইলে আপনি আপনার ইমেজ থেকে কোনো অংশ সিলেক্ট করে remove করতে পারবেন না। একটু পরে বুঝবেন আমি কি বুঝাতে চাচ্ছি।

rasterize করার পরে পেন টুল সিলেক্ট করুন।  তারপর নিচের ছবির মতো পেনটুল দিয়ে কোণাটুকু সিলেক্ট করুন। সিলেক্ট করা অংশের ভিতরে রাইট ক্লিক করে make selection ক্লিক করুন দেখবেন আপনি যেই জায়গাটাকে পেনটুল দিয়ে সিলেক্ট করেছেন তা সিলেক্ট হয়া যাবে। এইতা হইতো না যদি না আপনি আপনার ইমেজ rasterize না করতেন।

5

 

সিলেক্ট করার পরে delete চাপুন দেখবেন যে আপনার সিলেক্ট করা অংশটা রিমুভ হয়া গেছে। এখন আমরা ইমেজ অ্যাড করবো। আপনাদের ইচ্ছা মতো যেকোনো একটা ইমেজ বসিয়ে দিন। আমি এই ইমেজটা একজন ভাইয়ার কাছ থেকে নিছি উনি ফটোগ্রাফি করেন। উনারে জিজ্ঞাসা করে ছবিটা নিছি নিজে ব্যাবহার করার জন্য তাই আপনাদের দিতে পারলাম না কিন্তু আপনারা নিজের ইচ্ছা মতো যেইকোনো একটা ছবি বক্সটার উপরে ড্রাগ অ্যান্ড ড্রপ করুন তারপর লেয়ার টির উপরে রাইট ক্লিক করে create clipping mask এ ক্লিক করুন।

 

5.2

 

স্টেপ ৬

 ব্যাকগ্রাউন্ড লাইনস

এখন আমরা নিচের ছবিতে যেরকম লাইন দেওয়া আছে অনেক সেরকম লাইন দিবো অনেক গুলা। এইখানে আপনাদের বেশি কিছু শিখানোর নাই। আমি কিছু লাইন দিছি weight 1 দিয়ে আবার কিছু দিছি ২ অথবা ৩ দিয়ে। লাইন টুল সিলেক্ট করে pink #ce2159, turquoise #0ad0bf, white #f4f1fc কালার ব্যাবহার করে আপনি যেভাবে ইচ্ছা সেভাবে লাইন দিতে পারেন। আমি কিছু লাইনকে rasterize করে ব্লার দিছি। আপনারা চাইলেও সেরকম করতে পারেন। সব গুলা লাইন কে একটু গ্রুপ (ctrl+g) এর ভিতরে নিয়ে পুরা গ্রুপ টাকে টেনে ব্যাকগ্রাউন্ড এর উপরের গ্রুপ এ রাখবেন যাতে আপনার লাইন আপনার মেনু, ইমেজ অথবা লোগো এর উপরে চলে না যায়, আপনারা চাইলে লাইন গুলা ব্যাকগ্রাউন্ড বানানোর পরেই বানাতে পারেন কিন্তু আমি পরে বানালাম কারন এতে আমার লাইন এর angle decide করে সুবিধা হইছে।

6

 

স্টেপ ৭

 মেইন body content

আপনারা আপনাদের ইচ্ছা মতো বডিতে যেকোনো কন্টেন্ট দিতে পারেন। আমি কি দিমু বুঝতে না পাইরা যা মন চায় বসাইয়া দিছি :P প্রথমে

T চাপুন কীবোর্ড এ তারপর কিছু একটা লিখুন আমি লেখলাম miami talent। তাপর উপরে window option এ ক্লিক করে character ওপেন করুন তারপর আপনার ফন্ট সিলেক্ট করুন। এবং নিচের ছবির মতো সেটিং দিন।

 

7.1

 

তারপর mIamy এর I সিলেক্ট করে #0ad0bf দিন এবং talent এর I সিলেক্ট করে #ce1750 দিন।

Miami talent: font – hobo std,  size – 70 { আবারো বলি আপনাদের যে আমার ফন্ট এর সাইজ অনেক বড় আপনারা চাইলে ছোট করে দিতে পারবেন অথবা ছোট করা উচিৎ আমি বড় করে দিছি যাতে বিডিগিক্স এ শেয়ার করলে আপনারা বড় করে দেখতে পারেন }

express your talent: font- hobo std, color – #ce1750, size – 21

be awesome, be famous: font – hobo std, color – #0ad0bf, size – 18

ছবির নিচে online লিখুন moolboran ফন্ট দিয়ে, সাইজ দিন ২৫ আর কালার দিন #0ad0bf। প্রয়োজনীয় ফাইলস থেকে arrow আইকন ড্রাগ অ্যান্ড ড্রপ করে ইমেজ ছোট করে নিন। ছোট করতে লেয়ার এর উপরে ক্লিক করুন ctrl+t দিন তারপর ctrl চাপ দিয় ধরে রেখে বক্স এর ভিতরের দিকে cursor নিন। ctrl চেপে ধরে রেখে যদি আপনি ইমেজ ছোট করেন তাইলে আপনার ইমেজ proportionally change হবে। যেমন ধরুন, আপনার আইকন এর height ১০ হলে আইকন  এর width ও ১০ হবে। ctrl চেপে না ধরে যদি বড় ছোট করতে যান তাইলে proportionally না ও হতে পারে তখন হয়তো আপনার আইকন চ্যাপ্টা দেখাবে অথবা বেশি লম্বা দেখাবে।

7.2

 

এখন আমরা নিচের অংশ টুকু তে কিছু দিতে পারি। আমি হাবিজাবি কিছু একটা দিয়া রাখছি আপনারা আপনাদের দরকারি যেকোনো কিছু একটা দিতে পারেন।  T চাপুন keyboard এ তারপর আপনাদের ইচ্ছা মতো কিছু একটা লিখু।

আমার material এর ফন্ট Gautami, সাইজ – ২৫, কালার – f9f9f9।

তারপর move tool এ ক্লিক করুন নতুন করে আবার stron www লিখুন যাতে ২ টা লেয়ার create হয়, ২ টা লেয়ার হইলে আপনি যেখানে ইচ্ছা সরাইতে পাইবেন অথবা কালার change করতে সুবিধা হয়। আমার stron www  এর কালার – 0ad0bf, ফন্ট সাইজ – ২০ পিক্সেল।

তারপর custom shape tool এ ক্লিক করুন। উপরের arrow টিতে ক্লিক করার পরে ডানের সেটিং থেকে all সিলেক্ট করলে সব গুলা shape লোড হবে সেখান থেকে নিচের round diamond shape টা সিলেক্ট করে নিন।

 

7.3

 

উপর থেকে ফিল এর কালার দিন ce2159 । কালার কিভাবে  change করে না জানলে নিচের ছবির সাহায্য নিতে পারেন।

7.4

7.5

 

তারপর আমার দেয়া আইকন থেকে arrow আইকন বসিয়ে দিন আপনার diamond shape এর উপরে। কালার দিয়ে দিন সাদা #ffffff. তারপর সব গুলা লেয়ার কে একটা গ্রুপ এর ভিতরে নিন তারপর একটা নতুন লেয়ার গ্রুপ এর ভিতরে ওপেন করুন। নতুন লেয়ারটাকে সব গুলা লেয়ার এর নিচে নিন তারপর ব্রাশ টুল ক্লিক করুন এবং foreground color দিন 45365c, ব্রাশ এর সাইজ দিন ১৫০ তারপর আপনার element এর জায়গায় একটা ক্লিক করুন।

এভাবে আপনার বাদ বাকি কন্টেন্ট গুলাকে ফিল করুন। আমি শুধু গ্রুপ এর কপি করে পাশে বসাইয়া দিছি আপনারা চাইলে নতুন করে আবার বানাইতে পারেন যাতে আরও practice হয়। আর স্পেছিং(spacing/দূরত্ব) এর কথা অবশ্যই ভুলবেন না। সব গুলা কন্টেন্ট এর মাঝখানে যেনো সমান স্পেছিং(spacing/দূরত্ব) থাকে সেদিক অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে।

 

7.6

 

স্টেপ ৮

 ফুটার

আসুন আমরা এখন ফুটারটা বসিয়ে নেই যাতে দেখতে পারি যে ফুটার এর পরে আমাদের আর কতোটুকু জায়গা থাকে অন্য কন্টেন্ট গুলা বসানোর। ফুটার এর কালার আপনার ব্যাকগ্রাউন্ড এর কালার ( 2c233b) দিন এবং height দিন ১.২৫০ ইঞ্চি। বক্সটি আঁকতে rectangle tool এর সাহায্য নিন। তারপর custom shape tool থেকে একটি Triangle সিলেক্ট করুন এবং একি কালার দিয়ে আপনার ফুটার এর দানের দিকে বসিয়ে দিন।

8

 

আপনারা ডানের দিকে social icon দিতে পারেন যা এখন অনেক ব্যাবহার করা হয়। আমি কিছু দেই নাই শুধু একটু ফেসবুক লিখা রাখছি যার ফন্ট Gautami, ফন্ট সাইজ ২০, কালার #ffffff । বামের দিকের ফোন নাম্বার লেখার সাইজ ও একি আর actual নাম্বার এর কালার ce1750, ফন্ট সাইজ ১৬।

 

8.1

আপনারা চাইলে আইকন বসাতে পারেন যা দেখতে হবে এইরকম। আপনাদের আমি আইকন গুলা প্রয়োজনীয় ফাইলসে দিয়া দিছি আপনারা নিজেদের ইচ্ছা মতো বসাতে পারেন। আমার আইকন গুলার সাইজ 144×144 আর মাঝখানে spacing ১৫ পিক্সেল।

8.2

 

স্টেপ ৯

 ব্যাকগ্রাউন্ড কন্টেন্ট

এখন আমরা ফিরে যাবো আবারো ব্যাকগ্রাউন্ডে। কারণ আমাদের যে কন্টেন্ট গুলা অ্যাড করবো তা ব্যাকগ্রাউন্ড এর সাথে রিলেটেড। ব্যাকগ্রাউন্ড এর purple কালার লেয়ার আছে একটা তার নিচে একটা লেয়ার ওপেন করুন। তারপর আপনি ৪ ইঞ্চি তে একটা guide রাখুন। যাতে বুঝতে পারেন যে আপনার বক্সটি কতো টুকুর ভিতরে থাকতে হবে। ০.৮৪৭ ইঞ্চি height দিয়ে একটা বক্স আঁকুন। বক্সটি ৪ পিক্সেল এর ভিতরে যেনো না যায়। বক্সটিকে ctrl+t দিয়ে সিলেক্ট করুন তারপর রাইট ক্লিক করে skew দিন। ঠিক সেভাবে এডিট করুন যেভাবে আমরা মেনুতে করেছিলাম।

9

 

এখন ওয়েবসাইট এর নাম লিখে দিন টেক্সট টুল ব্যাবহার করে। অথবা আপনাদের যা ইচ্ছা তা বসিয়ে দিন। আমি ব্যাবহার করছি moolboran font, font size 25, color #ffffff

9.1

সব গুলা লেয়ার সিলেক্ট করে গ্রুপ করে নিন তারপর আলাদা ভাবে রেখে দিন। নতুন একটা লেয়ার ওপেন করুন তারপর আরেকটি বক্স আঁকুন ce1750 দিয়ে। ঠিক যেভাবে আগের বক্সটি এডিট করছেন এইটাও সেইভাবে এডিট করুন। তারপর আরেকটি বক্স আঁকুন একি কালারের কিন্তু এইবার বড় করে বক্স আঁকুন। নিচের ছবির মতো করে।

 

9.2

 

তারপর বক্সটিকে ctrl+t দিয়ে সিলেক্ট করুন তারপর রাইট ক্লিক করে আবার skew দিন। নিচের cursor থেকে কোণা ডান দিকে নিয়ে purple কালার এর সাথে মিলিয়ে নিন যাতে আপনার এইরকম একটা শেপ তৈরি হয়। তারপর আপনার ইচ্ছা মতো আবারো কোনো একটা title দিয়ে দিন।

 

9.3

 

স্টেপ ১০

arrow

এখন purple কালার বক্সটির উপরে আমরা ২ টা এরও বসাবো। ফাইলস থেকে arrow নিয়ে ড্রাগ অ্যান্ড ড্রপ করুন তারপর নিজের ইচ্ছা অনুযায়ী ছোট বড় করে কালার দিন ce1750 । এখন ctrl+j চেপে আরেকটি কপি তৈরি করুন। নতুন কপি করার লেয়ারে ctrl+t ক্লিক করে right click করলে flip horizontal নামে একটি অপশন পাবেন তা ক্লিক করুন। তারপর keyboard এর বামের arrow তে ক্লিক করে arrow টাকে বামে নিয়ে আসুন।

 

10

 

 

ফাইনাল স্টেপ

 আমাদের টিউটরিয়াল মুটামুটি শেষ এখন শুধু নিচের কন্টেন্ট টুকু বসানোর পালা। text tool সিলেক্ট করুন তারপর know more about টাইপ করুন। ফন্ট Gautami – bold, সাইজ ২০ , কালার 504f51।

তারপর custom selection tool ক্লিক করে hexagon shape টি সিলেক্ট করুন। পিঙ্ক কালারটি দিন এবং ফাইলসে দেওয়া dollar টি ড্রাগ অ্যান্ড ড্রপ করুন। এই জিনিস গুলা করা এতো সহজ যে আমি detailed ভাবে বলতেছি না। আশা করি এই ছোট খাটো জিনিস গুলা আপনারা নিজেরাই পারবেন।

আপনারা alignment টি লক্ষ্য করুন আমি কিভাবে করেছি। hexagon shape টি পিঙ্ক বক্সটির ঠিক নিচে সাথে More about us লেখাটিও। এভাবে alignment করে ওয়েব টেম্পলেট করাটা অনেক জরুরী কারণ এতে একটা flow থাকে ডিজাইন এর নাইলে একেক জিনিস একেক জায়গায় থাকলে ডিজাইন এর কোনো flow থাকবে না।

11

 

Description লেখা গুলার ফন্ট একি কিন্তু সাইজ ১৫ এবং regular। More about us লেখা টার মতো bold না। টেক্সট টুল সিলেক্ট করে প্রথমে একটা বক্স বানিয়ে নিন তারপর আপনার লেখা গুলা বক্সটির ভিতরে লিখুন যাতে আপনার লেখা বাইরে চলে না যায়

11.1

ঠিক একই পদ্ধতিতে আপনি recent, Contact and Learn সেকসনটি বানাতে পারবেন। আমি আলাদা ভাবে এইটা করে আর দেখাবো না। specing, content, length, alligment  এগুলার দিকে অবশ্যই খেয়াল রাখবেন।

 

11.2

 

সব শেষে আমাদের টেমপ্লেটটি শেষ করার জন্য যা করতে হবে তা হলো divider অ্যাড করা। line tool সিলেক্ট করুন তারপর ফিল কালার দিন a6a3a3। recent and contact এর মাঝখানে একটা লাইন আঁকুন। তারপর opacity কমিয়ে ২২% দিন। লেয়ারটিকে কপি করুন ctrl+j দিয়ে তারপর রাইট arrow keyboard এ চেপে লাইন টিকে ডানের দিকে নিয়ে contact and learn এর মাঝখানে place করুন।

11.3

 

এবং এরই সাথে শেষ হয়ে গেলো আমাদের awesome, colorful and amazing টেমপ্লেট বানানো। আশা করি আপনাদের বানাতে কোনো অসুবিধা হবে না আমি যতটুকু পারি explain করার ট্রায় করছি কিন্তু তাও যদি কোনো জায়গা বুঝতে অসুবিধা হয় আপনাদের আমাকে অবশ্যই কমেন্ট এর মাধ্যমে জানাবেন। টিউটরিয়ালটি ভালো লাগলো নাকি না আমাকে কমেন্ট এর মাধ্যমে জানাতে ভুলবেন না :) ধন্যবাদ।

ট্যাগসমূহ:

লেখক: ইরা আহমেদ

উনারে অনেক ভালোবাসি আর ভালোবাসি শিখাইতে...।। মানুষকে হাসাইতেও অনেক ভালো লাগে :) ফটোশপিং করা ব্লগ এ টিউটরিয়াল লেখা এবং উনার সাথে অনেক অনেক গল্প করা আমার শখ, অভ্যাস অথবা আমার দৈনন্দিন জীবন বলতে পারেন। ( University khular age porjonto :P )



কথোপকথন শুরু হয়ে গেছে! আপনিও যোগ দিন- ইতোমধ্যে 14 টি মন্তব্য করা হয়েছে :

  1. saiful.dreamlandon October 1, 2013, at 10:38 pm Reply

    অনেক অনেক অপেক্ষার পর……………..দারুন একটি টিউটোরিয়াল পেলাম ……………………. অনেক অনেক ধন্যবাদ এর জন্য ।

    • ইরা আহমেদon October 4, 2013, at 5:38 pm Reply

      :) আপনাকেও ধন্যবাদ কমেন্ট করার জন্য :)

      • saiful.dreamlandon October 20, 2013, at 2:04 pm

        আপু…প্রয়োজনীয় ফাইলটি তো ডাউনলোড হচ্ছে না…………প্রয়োজনীয় ফাইলটিতে কি পিএসডি ফাইলটি আছে????

  2. mamunon October 6, 2013, at 7:56 pm Reply

    thanks for this tutorial

  3. masumon October 11, 2013, at 7:34 pm Reply

    Apnader website az prothom daklom.sothi kub valo laksa arokom akti website a duka.osatharon apnader websiti.apnader anak donnobath.photoshop o illustrator ar kaz kortha amar kub valo laga.boltha paran ata amar nasa o pasa.kinto thamon kono shohojogitha karo kas thaka passina.asa korsi apnader kasthak anak valo kisa siktha parbo.apnara ki illustrator ar o por kono tutorial danna?jodi na hoy tahola ami kivaba patha pari.lakai kona vol thakla map korban.donnobath.masum.

    • ইরা আহমেদon October 21, 2013, at 4:11 pm Reply

      না ভাই আমি ইল্লু এর উপর কোনো টিউটরিয়াল দেই না দুঃখিত। বাংলা টিউটরিয়াল কিভাবে পেতে পারেন তাও জানা নেই। কিন্তু ইংরেজি তে শিখতে পারলে এই ওয়েবসাইটি ব্যাবহার করতে পারেন। http://vector.tutsplus.com/

  4. Madboyon October 14, 2013, at 5:57 am Reply

    tutorial-ta valo laglo……tobe file ‘download ‘ hosse na…………404 error dekasse…………….help pls.

  5. মাসরুর হাবীবon July 2, 2014, at 8:14 pm Reply

    আপু আমি মাত্র ওয়েব ডিজাইন শিখা শুরু করলাম, আপনাদের ৪০-৫০ টা ভিডিও আছে, এছাড়া আপনাদের pdf কোন টিওটোরিয়াল ফাইল আছে ?
    অথবা কোথায় পাব একটু নির্দেশনা দিবেন প্লিজ……………………….

  6. gsm ashikon July 7, 2014, at 4:44 am Reply

    bro ps er vdo koy parle update koiren .oooo ami apnar noakhali language learn korte chai .shekhaben….best of luck ….

  7. আপু আপনার ওয়েব সাইট টি আমি আজ প্রথম দেখলাম, খুব ভালো লাগছে আমার। সব গুলো পোষ্ট ই খুব ই সুন্দর হয়েছে। এগিয়ে চলেন আপনি সফলতা আপনাকে হাতছানী দিয়ে ডাকছে ।

  8. SUDIP SAMANTAon January 1, 2015, at 3:06 am Reply

    Myself Sudip. I am from Kolkata. I saw the Psd to Html tutorial. It’s great. As a student of web design the tutorial is very helpful to me. Thanks a lot. But now days a web designer have to know responsive web design and the uses of WordPress. So please please upload such tutorial. Thanks again..

  9. MD.SAIDUL ISLAMon May 26, 2015, at 6:25 pm Reply

    টিউটোরিয়াল টা আমার কাছে খুব ভাল লেগেছে। এটা সবার উপকারে আসবে। এবং দোয়া করি আরও টিউটোরিয়াল তৈরি করে আমাদের শিখার সুযোগ করে দিন।

Leave a Reply to SUDIP SAMANTA Cancel reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *