শুরুতে সবাই কে আমার সালাম এবং ফটোশপ tutorial সিরিজ এ ওয়েলকাম জানাইতেছি। আমি আপনাদের প্রথম টিউটরিয়ালে বলছিলাম একবার এবং এখন আবার বলি যে, আমি ফটোশপে একবারেই নতুন। আপনারা হয়ত ভাবতেছেন যে, নতুন যখন তখন টিউটরিয়াল দেয়ার দরকার কি? আমার মাথায় যখন প্রথম এই চিন্তা আসে যে আমি ফটোশপ টিউটরিয়াল দিব তখন আমার মেইন উদ্দেশ্য ছিল ইংলিশ সব টিউটরিয়াল কে বাংলা করে দেওয়া। আমরা মানি আর না মানি ইংলিশ ভাষা বুঝা এবং বলা ২ টাতেই বাংলাদেশের মানুষ এখনো অনেক পিছিয়ে আছে। আপনি হয়ত বুঝেন, জানেন অথবা বলতেও পারেন কিন্তু অন্যজন পারে না, জানে না অথবা বুঝে না। তাই আমার মেইন উদ্দেশ্য ছিল যে আমি পারি আর না পারি ওইটা ফেক্ট না, ফেক্ট হইতেসে আপনাদের শিখার সুযোগ দেওয়া পাশাপাশি নিজে শিখা। আমি নিজে এই পর্যন্ত মাত্র ৮ – ১০ টা ছবি বানিয়েছি এবং ওগুলা সব গুলার বাংলা টিউটরিয়াল দিবো আপনাদের ইনশাল্লাহ। কিন্তু আজকে এমন একটা টিউটরিয়াল দেই যেটা আমি নিজে এখনো ট্রায় করি নাই কিন্তু আপনারা যারা ফটোশপ এর বেসিকটা জানেন তারা অবশ্যই দেখে দেখে করতে পারবেন।তো আসুন এবার শুরু করা যাক,  নিচের ছবিতে দেখে নিন আমরা আজকে কি বানাতে যাচ্ছি :) ,

 

স্টেপ ১ -

মেইন ইমেজ ডাউনলোড করুন এইখানে। অথবা উপরে দেওয়া ডাউনলোড সোর্স থেকে নামিয়ে নিতে পারেন। আপনারা যদি ডাউনলোড করতে না পারেন তাহলে সেভ করে আপনাদের ব্যাবহার করতে হবে। নতুন একটি ফটোশপ ডকুমেন্ট খুলুন যার ইমেজ সাইজ হবে width – ১১৪০ px, height – ৯০০ px। সেভ করা ইমেজ টিকে ফটোশপের এই ফাইলে ওপেন করুন এবং ফটোশপ এর নতুন ডকুমেন্ট এর সাইজ এ বড় করে নিন। Ctrl + t অথবা Menu – Edit – Free transform ব্যাবহার করলেই আপনার দেখবেন বড় করার জন্য ছবির চারপাশে একটি স্কোয়ার এসেছে।

1

স্টেপ ২ -

এই লেয়ার এ একটি লেয়ার স্টাইল এফেক্ট করুন। লেয়ার স্টাইল এফেক্ট ব্যাবহার করতে আপনাদের ছবির লেয়ারে ২ বার ক্লিক করতে হবে অথবা আপনারা Layer – Layer style – color overlay তেও যেতে পারেন। ব্লেন্ড মোড সফট লাইট এবং বাদামি রঙের কালার ব্যাবহার করবেন (#8b5c01)। নিচের ছবিতে দেখুন কিরকম করা হয়েছে,

 

                                              2

স্টেপ ৩ -

এখন আমরা ব্রাশ টুল ব্যাবহার করে ১ টি শেপ তৈরি করব। Rectangle Tool(U) ব্যাবহার করে ১ টি লম্বা লাইন অথবা শেপ আকুন। মনে রাখবেন শেপ গুলা black হতে হবে। তারপরে Edit>Transform Path>Skew তে গেলে দেখতে পাবেন যে একটি বক্স আসছে যেটা নাড়ালে আমাদের বানানো লাইনটি পরিবর্তন হয়।

নিচের বামের শেপটি Skew করার আগে এবং ডানের শেপটি Skew করার পরে!!! তারপর  Layer>Rasterize>shape ব্যাবহার করে আপনার লেয়ারকে rasterize করুন।
                                                        3

স্টেপ ৪ -

আপনার ছবির লেয়ার এর থাম্বনেইলে রাইট ক্লিক করলে একটি অপশন উপরে দেখতে পাবেন “Select Pixels” এইটায় ক্লিক করুন। তারপর Edit>Define Brush Preset এ গিয়ে নতুন ব্রাশ বানান এবং ব্রাশ এর নাম দিবেন “বাশ” যেহেতু শেপটা দেখতে একটু বাঁশের মত দেখায় তাই আমরা এই নাম বেছে নিলাম। ব্রাশ বানানো শেষ হয়ে গেলে Window>Brushes এ যান এবং নিচের ইমেজ অনুযায়ী ব্রাশ সেটিংস্‌ দিন।

নোট – ব্রাশ টুল এ অবশ্যই আগে ক্লিক করে নিবেন নাহলে সেটিং দিতে পারবেন না।
                                       4

স্টেপ ৫ -

নতুন লেয়ার ওপেন করুন । লেয়ার এর উপরে ২ বার ক্লিক করলে লেয়ার স্টাইল অপশন চলে আসবে। আসুন আমরা নতুন লেয়ারে কিছু এফেক্ট দেই। আমরা Gradient Overlay, Drop Shadow, and Inner Shadow এই ৩ টা স্টাইল ব্যাবহার করব। নিচের ছবি তে দেখুন কিভাবে স্টাইল গুলো ইউজ করবেন। এফেক্ট দেয়া শেষ হয়ে গেলে লেয়ারে কিছু শেপস আঁকুন।

                                     5

স্টেপ ৬ -

যেই লেয়ার এ শেপ এঁকেছেন ওই লেয়ার এ রাইট ক্লিক করে লেয়ার স্টাইল টাকে কপি করে নিন। তারপরে নতুন একটু লেয়ার ওপেন করুন এবং রাইট ক্লিক করে পেস্ট লেয়ার স্টাইল এ ক্লিক করুন। পেস্ট করা হয়ে গেলে ব্রাশ টুল এ গিয়ে আর কিছু শেপস আঁকুন। নিচের ছবি দেখুন,

                                                              6

স্টেপ ৭ -

স্টেপ ৬ আবার রিপিট করুন।

স্টেপ ৮ -

আমরা যে ৩ টি শেপ লেয়ার বানালাম সবগুলা এক সাথে সিলেক্ট করুন। কন্ট্রোল চাপ দিয়ে দিয়ে আপনি একের অধিক লেয়ার সিলেক্ট করতে পারবেন। ৩ টি লেয়ার সিলেক্ট করা শেষ হয়ে গেলে Layer>Merge Layers এ গিয়ে ছবি গুলাকে এক করে নিন। তারপর Edit>Transform>Rotate এ গিয়ে নিচের ছবি অনুযায়ী শেপ গুলাকে রিসাইজ করে নিন।

                                                    8

স্টেপ ৯ -

এখন Edit>Transform>Warp এ গিয়ে আস্তে আস্তে ইমেজ টাকে ঢেউ এর মত একটা শেপ দেওয়ার ট্রায় করুন। এটা করবেন যাতে কিছুটা লাইন পায়ের পিছন দিয়ে যায়। নিচের ছবি আপনাকে Warp করে সাহায্য করবে,

                                                 9

স্টেপ ১০ -

Polygonal Lasso Tool(L) এ গিয়ে যে পা আপনি সামনে রাখতে চান অথবা ইমেজ এ শো করতে চান ওই পায়ের একটি সিলেকশন তৈরি করুন। তারপর শেপ লেয়ার এ ক্লিক করে Layer>Layer Mask>Hide Selection করলে আপনার শেপ এর অংশ removed হয়ে পা দেখা যাবে।

                                                    10

স্টেপ ১১ -

শেপ লেয়ার এর উপরে নতুন একটি লেয়ার ক্রিয়েট করুন। নতুন লেয়ার উপরে রাইট ক্লিক করে Clipping Mask বসান। তারপর ব্রাশ টুল সিলেক্ট করুন। 0% hardness দিয়ে সফট একটি ব্রাশ চুজ করুন। আমরা ব্রাশ দিয়ে highlight ক্রিয়েট  করব। আপনার ব্রাশ দিয়ে একবার ছবির উপরে ক্লিক করুন যেইখানে আপনি চান আপনার লাইন শুরু হক ( নিচের ছবিতে ১ – যেইখানে লাইন শুরু হইসে এবং ২ – যেইখানে লাইন এন্ড হইসে )।  তারপর তারপর কিবোর্ড এর Shift বাটনটি ধরে ঐখানে ক্লিক করুন যেইখানে আপনি চান আপনার লাইন শেষ হক। এরকম করায় আপনার একটু সোজা লাইন তৈরি হবে। ব্লেন্ড মোডে ‘ Normal’ রাখুন এবং “60% Opacity” দিন।

নোট – ব্রাশ এর ফরগ্রাউন্ড কালার সাদা ব্যাবহার করতে ভুলবেন না।
                                                    11

স্টেপ ১২ -

স্টেপ ১১ রিপিট করুন অন্য পায়ে কিন্তু এইবার ফরগ্রাউন্ড কালার কাল ব্যাবহার করবেন এবং Opacity 40% রাখবেন।

                                                 12

স্টেপ ১৩ -

সব গুলা লেয়ার এর উপরে নতুন একটি লেয়ার create করুন। সাদা দিয়ে ফিল আপ করে Filter>Noise>Add Noise এ যান এবং 4% নইজ ব্যাবহার করুন। তারপর লেয়ার এর ব্লেন্ড মোড  Multiply দিন।

                                                            13

ফাইনাল স্টেপ -

নইজ লেয়ার এর নিচে এই ইমেজ টি ওপেন করুন। ওপেন করে যদি ছবিটি ছোটো আসে তাহলে ইমেজটিকে বড় করে নিন। তারপরে ব্লেন্ড মোড Multiply দিন।

এবং হয়ে গেল আমাদের উল্টা দুনিয়ায় রঙ্গিন ফানুস উড়ানো। :)
আপনারা যদি কখনো ছবিটি বানান তাইলে অবশ্যই আমাকে দেখাবেন যে কেমন বানিয়েছেন। আমি নিজে যখন বানাব তখন আপনাদের অবশ্যই দেখাব। কোন ধরনের হেল্প লাগলে অথবা যা বুঝেন নাই টীউটোরিয়ালে আমাকে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন। আমি যতটুকু পারি আপনাদের হেল্প করতে সাহায্য করব।  আশা করি আপনাদের আজকের টিউটরিয়াল ভালো লেগেছে। কষ্ট করে এত লম্বা একটি টিউটরিয়াল পড়ার জন্য অনেক ধন্যবাদ।

ট্যাগসমূহ:

লেখক: ইরা আহমেদ

উনারে অনেক ভালোবাসি আর ভালোবাসি শিখাইতে...।। মানুষকে হাসাইতেও অনেক ভালো লাগে :) ফটোশপিং করা ব্লগ এ টিউটরিয়াল লেখা এবং উনার সাথে অনেক অনেক গল্প করা আমার শখ, অভ্যাস অথবা আমার দৈনন্দিন জীবন বলতে পারেন। ( University khular age porjonto :P )



কথোপকথন শুরু হয়ে গেছে! আপনিও যোগ দিন- ইতোমধ্যে 12 টি মন্তব্য করা হয়েছে :

  1. bandhu tuhinon July 20, 2012, at 7:08 pm Reply

    fantastic man……….its really good job……..take care……….

  2. আরফিনon August 5, 2012, at 7:02 am Reply

    প্রতিটা টিউটরিয়ালে লেয়ার গুলোর স্ক্রিনসট দিলে বুঝতে অনেক অনেক সুবিধা হত :(

    • ইরা আহমেদon August 5, 2012, at 12:56 pm Reply

      পরবর্তী টিউটরিয়াল গুলাতে দিতে চেষ্টা করব! thanks :)

  3. মাসুদ রানাon September 6, 2012, at 9:10 pm Reply

    আমি PS CS6 ব্যবহার করতেছি। স্টেপ ৪ এ Other Dynamics অপশন টা আসতাছে না, কি করতে পারি?

  4. সিমান্তon September 12, 2012, at 4:28 pm Reply

    নতুন কিছু শিখলাম।

    অনেক ধন্যবাদ।

  5. সুমন শেখon November 16, 2012, at 9:08 am Reply

    mam, rasterize hosse na. amr photpshope a layer>rasterize>shape option ta disable hoia ase. shudhu layer style option ta select kora jay, r baki shb i disable like type, shape, fill content, vector mask. problem ta ki 1tu bolben??

  6. সুমন শেখon November 16, 2012, at 9:39 am Reply

    define brush preset er upor basic tutorial dite parle mam, eigulate r kono problem i hoito na!!!

    • ইরা আহমেদon February 23, 2013, at 1:55 pm Reply

      আমি নিজেই ব্রাশ preset পারি না ভাই কেমনে দিমু বলেন :P

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *